| |

Ad

দীর্ঘায়ু পেতে হলে…

আপডেটঃ ১:৫৮ অপরাহ্ণ | মে ২০, ২০১৯

অতিভোজন পরিহার : দীর্ঘ জীবন পেতে অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। গবেষণা বলছে, কম ক্যালরি গ্রহণের সঙ্গে জীবনের ব্যাপ্তি বেড়ে যাওয়ার সম্পর্ক রয়েছে। কারণ কম পরিমাণে ক্যালরি গ্রহণের কারণে শরীরের বাড়তি ওজন ও পেটের চর্বি কমে।

প্রচুর বাদাম খান : বাদাম হলো পুষ্টির আধার। এটি আমিষ, আঁশ, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন ও খনিজসমৃদ্ধ। এ ছাড়া এতে রয়েছে কপার, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, ফলেট, নিয়াসিনসহ অন্য প্রয়োজনীয় উপাদান। এ কারণে হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, ক্যান্সারসহ অনেক জটিল রোগের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে বাদাম। গবেষণা বলছে, বাদাম খেলে অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি ৩৯ শতাংশ কমে যেতে পারে।

হলুদ খান : হলুদ একটি অনন্য মসলা। এর রয়েছে এন্টি-এজিং বা বয়সরোধী গুণ। কারণ এতে রয়েছে কারকুমিন নামের উপাদান। গবেষণা বলছে, এ উপাদান জীবনের ব্যাপ্তি বাড়ায়। কারকুমিনের রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও প্রদাহরোধী গুণ। 

পর্যাপ্ত ফল-সবজি : দীর্ঘায়ু লাভের জন্য বিভিন্ন ধরনের ফল ও সবজি পর্যাপ্ত পরিমাণে খেতে হবে। এর ফলে অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি কমে বলে গবেষণায় বলা হয়েছে।

সচল থাকুন : শারীরিকভাবে সচল থাকা বা ব্যায়ামের কোনো বিকল্প নেই। প্রতিদিন মাত্র ১৫ মিনিটের ব্যায়াম আপনার আয়ু আরো তিন বছর বাড়িয়ে দিতে পারে বলে বলছে সাম্প্রতিক গবেষণা। 

ধূমপান বর্জন : দীর্ঘায়ু লাভ করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ধূমপানের বদভ্যাস ছাড়তে হবে। কেননা অকাল মৃত্যু এড়াতে এর বিকল্প নেই।

এ ছাড়া অ্যালকোহল, চাপ ও দুশ্চিন্তা এড়ানো, সামাজিক সম্পর্কের উন্নয়ন, আনন্দানুভূতি, চা বা কফি পান ইত্যাদি আপনার দীর্ঘ জীবন লাভের সহায়ক উপাদান হতে পারে।

হেলথলাইন অবলম্বনে খসরু নোমান