| |

Ad

ভূমধ্যসাগর থেকে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ অভিবাসী উদ্ধার

আপডেটঃ ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ | মে ২৫, ২০১৯

ভূমধ্যসাগরের লিবিয়া উপকূল থেকে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে দেশটির নৌবাহিনী। ইউরোপগামী তিনটি নৌকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। লিবিয়ার নৌবাহিনীর বরাত দিয়ে এই খবর দিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট।

শুক্রবার লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির পূর্ব উপকূলে দুটি পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করা হয় বলে খবরে বলা হয়।

গত ১০ মে ভূমধ্যসাগরে তিউনিশিয়া উপকূলে শরণার্থী বোঝাই একটি নৌকাডুবিতে ৬০ জনের বেশি মানুষ নিহতের রেশ কাটতে না কাটতেই ইউরোপগামী এতো বিপুল সংখ্যক অভিবাসীকে উদ্ধারের খবর জানালো লিবিয়া সরকার।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সাগরে তিনটি নৌকা অকোজে হয়ে পড়ার খবর লিবিয়ার নৌবাহিনীকে জানায় জার্মানির একটি দাতব্য সংস্থা। এছাড়া একটি রাবারের নৌকা ডুবে যাওয়ার খবর পায় লিবিয়ার কোস্টগার্ড। প্রথম নৌকাটিতে ১৪ জন বাংলাদেশিসহ ৮৭ জন অভিবাসী ছিলেন। তাদের মধ্যে ছয়জন নারী এবং একজন শিশু ছিলেন।

অন্যদিকে লিবিয়ার কোস্টগার্ড ভূমধ্যসাগরে ভাসমান আরও দুইটি রাবারের নৌকা থেকে ২০৩ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে বলে পৃথক বিবৃতিতে জানানো হয়। এতে বলা হয়, ত্রিপোলি থেকে ১৬০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত জলিতিন শহরের উপকূলে দুইটি নৌকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার হওয়া অভিবাসীদের বেশিরভাগই আরব ও অফ্রিকার বিভিন্ন দেশের নাগরিক। উদ্ধারের পর প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের লিবিয়ার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।