| |

Ad

যুক্তরাষ্ট্র-চীনের বাণিজ্যিক দ্বন্দ্ব বিশ্বকে ভোগাবে

আপডেটঃ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ | মে ২৮, ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্র-চীনের বাণিজ্যিক দ্বন্দ্ব বিশ্ব অর্থনীতির জন্য অশনিসঙ্কেত বলে উদ্বেগ জানিয়েছে অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ওইসিডি)। সংস্থাটির সেক্রেটারি জেনারেল অ্যাঙ্গেল গোরিয়া বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধ দিন দিন যেভাবে তীব্র হচ্ছে, তা বাকি বিশ্বকে আঘাত করবে ধারণার চেয়েও বেশি।

তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্ব অর্থনীতি বিপজ্জনক একটি পরিস্থিতিতে আছে। বিশেষ করে বাণিজ্যিক যে বিধি-নিষেধ আরোপ হচ্ছে, তা বেশি ক্ষতিকর।’

এ বছর বিশ্ব প্রবৃদ্ধি কমে যাবে বলে আভাস দিয়েছে ওইসিডি। সম্প্রতি প্রকাশিত ওইসিডির পূর্বাভাসে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র-চীন বাণিজ্য যুদ্ধ না থামালে ২০২১ ও ২০২২ সালে দুই দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি গড়ে ০.২-০.৩ শতাংশ করে কমবে। এর নেতিবাচক প্রভাব এরই মধ্যে বিশ্ব প্রবৃদ্ধিতেও পড়েছে। এ বছর বিশ্ব প্রবৃদ্ধি কমে হবে মাত্র ৩.২ শতাংশ।

এর কারণ হিসেবে সংস্থাটি বলছে, এ বছর বাণিজ্যপ্রবাহ প্রায় অর্ধেক কমে হবে ২.১ শতাংশ। ২০১৬ সালের পর থেকে এটাই বিশ্ব অর্থনীতিতে সবচেয়ে ধীরগতি। এর আগে সংস্থাটি আভাস দিয়েছিল, চলতি বছর বাণিজ্যপ্রবাহ গিয়ে দাঁড়াবে ৩.৩ শতাংশে।

ওইসিডি আরও জানিয়েছে, আগামী বছর বিশ্ব প্রবৃদ্ধি কিছুটা বেড়ে হবে ৩.৪ শতাংশ। তবে এটা সম্ভব হবে যদি যুক্তরাষ্ট্র ও চীন নতুন করে নিজেদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি শুল্ক আরোপ থেকে পিছু হটে। তা নাহলে বিশ্ব প্রবৃদ্ধি কমার পাশাপাশি নিজেদের নিম্নমুখী ভাগ্যও তারা বদলাতে পারবে না।

গত বছর থেকে শুরু হওয়া বাণিজ্য যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র এ পর্যন্ত চীনের ২৫০ বিলিয়ন ডলার পণ্যে শুল্ক আরোপ করেছে। এর বিপরীতে চীন যুক্তরাষ্ট্রের ১১০ বিলিয়ন ডলার পণ্যে শুল্ক আরোপ করেছে। এতে দুই দেশেরই বাণিজ্য ব্যয় বেড়েছে।

সূত্র: এএফপি, রয়টার্স