| |

Ad

দাড়ি ঘন করার প্রাকৃতিক উপায়

আপডেটঃ ১:৫৭ অপরাহ্ণ | মে ২৮, ২০১৯

দাড়িকে বলা হয় পুরুষের অলংকার। বর্তমান সময়ে পুরুষের চাপ দাড়ি রাখাটা সারা বিশ্বেই একটি ফ্যাশন হিসেবে চালু হয়েছে। এছাড়া দাড়ির ধর্মীয় গুরুত্বও অনেক। তবে হরমোনসহ অন্যান্য অনেক কারণেই ঘন দাড়ি হয় না অনেক পুরুষেরই। তবে পাতলা দাড়ি প্রাকৃতিকভাবে কিছুটা ঘন করা যায় চাইলেই। চলুন জেনে নেওয়া যাক কী সেই উপায়।

পেঁয়াজের রস :

দাড়ি ঘন করার ক্ষেত্রে পেঁয়াজ বেশ কাজে দেয়। দাড়ি না বড় হতে পারার অন্যতম একটি কারণ হলো পর্যাপ্ত সালফারের শক্তি না পাওয়া। পেঁয়াজের রসে প্রচুর পরিমাণে সালফারের উপস্থিতি থাকায় দাড়ি বাড়তে সহায়তা করে এটি। সালফার রক্ত চলাচল করতে সহায়তা করে। ত্বকের মধ্যে কোলাজেন নামক উপাদানের বৃদ্ধি ঘটিয়ে দাড়িকে ঘন করে তোলে দ্রুত।

তবে পেঁয়াজের রস ব্যবহারের কিছু নিয়ম আছে। প্রথমে তিন চামচ পেঁয়াজের রস নিন। এর সাথে ২ চামচ অলিভ অয়েল মেশান। এবার মিশ্রণটি ভালো করে গালে মেখে নিন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ৩-৪ দিন ব্যবহার করলে খুব দ্রুতই দাড়ি গজাতে শুরু করবে।

লেবু আর দারুচিনি :

ভালো দাড়ি পেতে চাইলে মুখ পরিষ্কার রাখাটা জরুরি। মৃত কোষগুলো না সরে গেলে হেয়ার ফলিকল বেরিয়ে আসতে পারে খুবই কম। পাতিলেবু এ ক্ষেত্রে বেশ কাজে দেয়। ভেতর থেকে ত্বককে পরিষ্কার করে তুলতে পাতি লেবুর কোন জুড়ি নেই। আর দারুচিনি মশলা হিসেবে অনেক উপকারে আসে। দাড়িগোঁফ ঘন করে তুলতে এটিও বেশ কার্যকর।

৪ চামচ পাতিলেবুর রসের সাথে ২ চামচ পরিমাণ দারুচিনির গুঁড়ো নিন। এ দুটো ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি ভালো মতো গালে মেখে নিন। মিনিট বিশেক পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই পদ্ধতিটি সপ্তাহে দুইদিন ব্যবহার করলে বেশ ফল পাওয়া যায়।

এই দুটি পদ্ধতি শুধু ব্যবহার করলেই দাড়ি ঘন হবে ব্যাপারটি এমন না। এর পাশাপাশি দরকার পর্যাপ্ত ঘুম আর প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার।