| |

Ad

শীতার্ত মানুষের পাশে পূর্ণিমা

আপডেটঃ ১১:০৭ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৫, ২০১৯

বিনোদন সংবাদ : একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে এবং একজন চলচ্চিত্রাভিনেত্রী হিসেবে চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা সবসময়ই দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য সচেতনতামূলক কর্মকাণ্ডে সহাস্যেই এগিয়ে আসেন। শীত এলেই শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণে এগিয়ে আসে দেশের নানান প্রতিষ্ঠান, সংগঠন। তবে এবার ‘প্রাণ আপ’র বিশেষ উদ্যোগ শীতার্ত মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে কম্বল বিতরণের বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা জানান, প্রাণ আপ’র ব্যবহৃত বোতল কিংবা প্রাণ’র যেকোনো প্রোডাক্টের বোতল আগামী ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সারা দেশের বিশটি বেস্ট বাইয়ের শাখায় রাখা উইন্টার বুথে কিংবা দেশের বিভিন্নস্থানে সেই সময়ে পিকআপ ভ্যানে থাকা উইন্টার বুথে জমা রাখলে এর বিপরীতে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ জমা করা হবে। সাত দিনব্যাপী এই জনসচেতনতা মূলক কর্মকাণ্ড থেকে উঠে আসা অর্থ দিয়ে কম্বল ক্রয় করে তা শীতার্ত মানুষের মধ্যে বিতরণ করা হবে।

প্রাণ বেভারেজ লিমিটেড’র ব্র্যান্ড ম্যানেজার তন্ময় দাস বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠান চাইলেই যেকোনো সময় কম্বল বিতরণ করতে পারে। কিন্তু দেশের মানুষের মধ্যে দুটি বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য এই ক্যাম্পেইনের আয়োজন করেছে। এক. শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান, ২. প্লাস্টিকের বোতল যত্রতত্র ফেলে পরিবেশ নোংরা না করে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার অভ্যাস গড়ে তোলা। আর সে ক্ষেত্রে আমরা পূর্ণিমাকেই মডেল হিসেবে নিয়ে কাজ করছি, কারণ দেশের সকল শ্রেণির মানুষের কাছে পূর্ণিমার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।

প্রাণ আপ’র এই ক্যাম্পেইনের নাম ‘ছড়াই ভালোবাসার উষ্ণতা’। অনলাইন মাধ্যমে প্রচারের জন্য পূর্ণিমাকে নিয়ে এটি নির্মাণ করেছেন বাপ্পা মাহমুদ। গত ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি এর শুটিং সম্পন্ন হয়েছে।

পূর্ণিমা বলেন, দেশের সচেতন একজন নাগরিক হিসেবে আমি সবসময়ই ঢাকায়, ঢাকার বাইরে নানান ধরনের সামাজিক সচতেনতামূলক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করি। একজন নাগরিক হিসেবে আমার দায়িত্ব তো রয়েছেই, পাশাপাশি একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবেও দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য সবসময়ই আমি কিছু না কিছু করার চেষ্টা করি। ছড়াই ভালোবাসার উষ্ণতা’ ঠিক তেমনই একটি কাজ। এ কাজটি আমি অনেক তৃপ্তি নিয়ে করেছি। আমি চাই পরিবেশের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখার পাশাপাশি শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াক সবাই। ধন্যবাদ তন্ময় দাসকে আমাকে এমন একটি সচেতনতামূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত রাখার জন্য।

তন্ময় দাস জানান, ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দিনাজপুর, রংপুর, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড়ের শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণ করা হবে। পূর্ণিমা বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘জ্যাম’ সিনেমার কাজ নিয়ে।