| |

Ad

ওজন কমালেন সারা

আপডেটঃ ৬:৩১ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২০

বর্তমানে বলিউডে অন্যতম আকর্ষণীয় নায়িকা সারা আলি খান। তরুণ প্রজন্মের কাছে সারা মানে সুন্দরী, সারা মানেই দুরন্ত শারীরিক গঠনের অধিকারী। 

কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে কয়েক বছর আগেও সারার ওজন ছিল ৯৬ কেজি! ছোট সময় থেকেই পলিসিসটিক ওভারিয়ান নামক হরমোনজনিত রোগে ভুগছিলেন সারা। ফলে তার ওজন স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক বেশি ছিল। 

অতিরিক্ত ওজনের কারণে সর্বদা স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুদের হাসি-ঠাট্টার শিকার হতেন। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রির পরে হঠাৎ ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত নেন সারা। 

তারপর একজন শারীরিক প্রশিক্ষকের শরণাপন্ন হন তিনি। টানা দেড় বছর ধরে চলে কঠোর অনুশীলন। এসময় নিয়মিত দৌড়ানোর পাশাপাশি প্রিয় খাবারের লোভও সামলাতে হয়েছে তাকে।  

তারই ফসল সারা মাত্র দেড় বছরে ৪৪ কেজি ওজন কমিয়ে আকর্ষণীয় গড়নের অধিকারী হন। বর্তমানে তার ওজন ৫২ কেজি।

সারা প্রতিদিন ৩ টি ব্যায়ামের অনুশীলন করেন। সেই তিনটি ব্যায়ামই দ্রুত তার ওজন কমাতে সাহায্য করেছে। তবে শুরুতে ট্রেনার তাকে তিনটি ব্যায়াম করার অনুমতি দেননি। 

ওজন কমানোর জন্য সারাকে প্রচুর হাঁটার নির্দেশ দিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিল সাইক্লিং এবং ট্রেডমিল। আর কঠিন ডায়েট তো ছিলই। 

ওজন কিছুটা কমলে তিনি নিয়মিত জিমে যাওয়া শুরু করেন। ট্রেনারের নির্দেশে বক্সিং, কার্ডিয়ো এবং পাইলেটস-এই তিনটি পদ্ধতির সাহায্যে ক্রমে নিজেকে ছিপছিপে করে তুলেন সারা। 

প্রতিদিন দেড় ঘণ্টা জিমে ব্যায়াম করেন সারা। এছাড়া অনেকেই জানেন না যে সারা একজন প্রশিক্ষিত ওডিশি নৃত্যশিল্পী। ফলে তার শারীরিক ব্যায়ামের ক্লাসে নাচের অনুশীলনও তালিকায় রয়েছে। 

সাধারণত সারা ইডলি অথবা পাউরুটির সাথে ডিমের সাদা অংশ খেয়ে দিন শুরু করেন। তারপর দুপুরের খাবার হিসেবে তালিকায় থাকে রুটি, ডাল, তরকারি, সালাদ আর কিছু ফল। সন্ধ্যায় স্ন্যাকসে নির্দিষ্ট কোনো খাবার থাকে না। নিজের পছন্দ অনুসারে একেক দিন একেক খাবার খান। আর রাতে থাকে রুটি ও সবুজ তরকারি।