| |

Ad

ভাঙ্গায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ২০

আপডেটঃ ৬:৫৪ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২০

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্লাহর সমর্থিত আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। ঘণ্টাব্যাপি চলা সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়েছে। বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের ভাঙ্গা ও মুনসুরাবাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গুরুতর আহতরা হলেন- চাতক ফকির, হান্নান মাতুব্বর, ওসমান মিয়া, তুহিন মাতুব্বর ও পরিরানী মালো। সংঘর্ষ চলাকালে মুনসুরাবাদ বাজারের বেশ কয়েকটি দোকানঘর ভাংচুর করা হয়। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং মহাসড়কসহ বাজারের গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের হামেরদী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড সম্মেলন চলছিল হামেরদী ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে। সম্মেলন শুরুর আগ মুহূর্তে ধনি মেম্বার ও বাবর আলী মেম্বারের লোকজনে সাথে আজিম ও হান্নান মাতুব্বরের লোকজনের কথা কাটাকাটি করে। বিষয়টি উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুর রহমান মিরন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান রাজা মীমাংসার চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে বিষয়টি আশপাশের ৫টি গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে উক্ত গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্র ঢাল, সরকি, রামদা ও ইট-পাটক্কেল নিয়ে মুনসুরাবাদ বিশ্বরোড ও বাজারের দুই পাশে অবস্থান নেয়।

ঘণ্টাব্যাপী এক গ্রুপ অন্য গ্রুপের ওপরে হামলা চালাতে থাকে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহম্মেদ ও ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুর রহমান দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এঘটনার পর আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করা হয়।