| |

Ad

ভালো থাকতে যে বন্ধুদের এড়িয়ে চলবেন

আপডেটঃ ৫:৩৩ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৩, ২০২০

বন্ধু ছাড়া জীবন আসলেই অসম্ভব। সুন্দরভাবে জীবন কাটাতে এক বা একাধিক ভালো মনের বন্ধুর প্রয়োজন হয়। যারা সুসময় এবং দুঃসময়ে আপনার পাশে থাকবে। স্কুল-কলেজ, অফিস এমনকী রাস্তাঘাটেও অনেকের সঙ্গে পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব হয়। তারা আসলে আপনার কতটা বন্ধু? সেই হিসাবটাও রাখা জরুরি।

কিছু স্বভাবের বন্ধু আছে যাদের থেকে দূরে থাকাই ভালো। নয়তো তাদের সংস্পর্শে থাকলে আপনার জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠতে পারে। জেনে নিন কোন ধরনের বন্ধুদের থেকে দূরে থাকবেন-যে কথা রাখে না: দেখা করার কথা, বেড়াতে যাওয়ার কথা, গেট টুগেদার বা পিকনিকে উপস্থিত থাকার কথা দিয়েও শেষে এসে বিশেষ কোনো কারণ ছাড়াই যদি তা বাতিল করে দেয়, তবে সেই বন্ধুকে এড়িয়ে চলুন। সে আসলে আপনার সময়ের গুরুত্ব দিতে পারবে না।

সুবিধাবাদী: সবাই যে বন্ধুত্ব করার জন্যই বন্ধু হয়, এমন কিন্তু নয়। এমন অনেককে পাবেন যারা শুধু স্বার্থ উদ্ধারের জন্যই আপনার বন্ধু হতে এসেছে। তাদের সঙ্গে কোথাও খেতে গেলে দেখবেন আপনাকেই বিল পরিশোধ করতে হচ্ছে। বিভিন্ন অজুহাতে সব রকম খরচের বোঝা আপনার উপরেই চাপাতে চেষ্টা করছে। এদের থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন।

হতাশাবাদী: জীবনে আশার পাশাপাশি থাকে হতাশাও। কখনো কখনো হতাশা এসে ভর করতে পারে। কিন্তু বন্ধুদের মাঝে যদি এমন কেউ থাকে যে নিজের ভাগ্য বদলানোর কোনো চেষ্টা না করে সব সময় হতাশায় ভোগেন তবে তাকে এড়িয়ে চলুন। কারণ এ ধরনের বন্ধুদের মধ্যে থাকলে আপনার ভেতরে নেতিবাচকতা চলে আসতে পারে।

প্রতিযোগী: ভালো কাজে প্রতিযোগিতা থাকা ভালো। তাই বলে আপনার বন্ধু যদি আপনার থেকে এগিয়ে থাকার জন্য সঙ্গে প্রতিযোগিতা করেন তবে তার সঙ্গ বাদ দিন। এরা নিজেদের কার্যসিদ্ধির জন্য বেশিরভাগ সময় প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ পদে যিনি রয়েছেন তার ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করে। এ ধরনের তেলবাজ বন্ধু নিশ্চয়ই আপনার জন্য উপকারী নয়!

নিয়ন্ত্রক স্বভাব: বন্ধুরূপী কেউ কেউ দেখবেন আপনার চিন্তাধারা, সিদ্ধান্ত এমনকী কাজকর্ম নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। এরা সব সময় সুপিরিয়র বা ইন্টেলেকচুয়াল বন্ধুর মতো আচরণ করে। একটা পর্যায়ে এমন বন্ধুরা আপনার ইচ্ছার বিরুদ্ধে হলেও আপনাকে কোনও কাজ করতে বাধ্য করবে। তাই এ ধরনের বন্ধুকে এড়িয়ে চলুন।

পরচর্চাকারী: বন্ধুদের মধ্যে কেউ কেউ দেখবেন সারাক্ষণ পরচর্চা নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। অন্যদের নিয়ে নানা রংচঙে গল্প সাজাতেই ব্যস্ত থাকে তারা। এরা আপনার পেছনেও ছুরি বসাতে দ্বিধা করবে না। তাই এদের কাছ থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন।

অযাচিত ব্যক্তি: কেউ কেউ দেখবেন আদতে আপনার বন্ধু না হলেও কথাবার্তা, আচরণে নিজেকে যেচে পড়ে আপনার বন্ধু হিসেবে উপস্থাপন করছে। আসলে সে কোনো স্বার্থ উদ্ধারের জন্যই এমনটা করছে। তাই তাকে সেই সুযোগ দেয়া উচিত হবে না।

আবেগতাড়িত: বন্ধুদের মধ্যে এমন কাউকে পাবেন যে কথায় কথায় আপনার উপর অতিরিক্ত আবেগতাড়িত হয়ে পড়ে। এরা মানসিকভাবে আপনাকে সব সময় আঁকড়ে রাখতে চায়। আপনাকে অন্য কারো সঙ্গে দেখলে এরা ঈর্ষান্বিত হয়, এমনকী নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। এরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর। এদের এড়িয়ে চলুন।