| |

Ad

ঝিনাইগাতীতে বন বিভাগের শত শত একর ভূমি বেদখল!

আপডেটঃ ৭:১৪ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৬, ২০১৯

মো. আবু রায়হান, শেরপুর ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি:
শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বন বিভাগের সরকারি শত শত একর ভূমি বিভিন্ন সময়ে ভূমিদস্যূদের দখলে চলে যায়। আর এই সকল জবর দখলকৃত ভূমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে বন বিভাগের দখলে আনা হয়। উল্লেখ্য রাংটিয়া রেঞ্জের ৩টি বিটের আওতাধীন শত শত একর বন ভূমি বে-দখল রয়েছে। উক্ত ভূমি উদ্ধারের লক্ষে রাংটিয়া রেঞ্জের গজনী ফরেস্ট বিটের আওতাধিন গান্ধিগাঁও এলাকা থেকে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়ে তা বন বিভাগের দখলে আনা হয়। রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে উক্ত উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা হয়। রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান, গান্ধিগাঁও গ্রামের জৈনক ভূমিদস্যূ প্রায় ১ একর জমি দখল করে ওই জমির উপর ঘর-বাড়ি ইত্যাদি নির্মাণ করে অবৈধ ভাবে ভোগদখল করে আসছে। সরকারের নির্দেশে ওই জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, তার দখলে বন বিভাগের আরও ২৫-৩০ একর জমি রয়েছে। পর্যায়ক্রমে ওইসব জমি থেকেও তাকে উচ্ছেদের পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। ভূমিদস্যু যতই শক্তিশালী হোক না কেন তাদের হাত থেকে জবর দখলকৃত জমি উদ্ধার করা হবে। আর এ উচ্ছেদ বর্তমান সরকারের সফলতার উদাহরণ। অভিযোগে প্রকাশ, এই সমস্ত বন বিভাগের ভূমিগুলি বিভিন্ন সময় বন বিভাগের অসাধু কর্মকর্তা/কর্মচারীদের যোগ সাজসে দখলদারদের হাতে চলে যায়। পরবর্তীতে দখলকৃত ভূমিতে ঘর-বাড়ি, গাছ-পালা লাগিয়ে দখল বজায় রাখে। তাই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের উক্ত বন বিভাগের জবর দখলকৃত বন ভূমি উদ্ধারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরী প্রয়োজন।